যাদের ইন্টারন্যাশনাল ডেবিড বা ক্রেডিট কার্ড নেই তারা সাধারণত দেশীয় হোস্টিং কোম্পানি খুঁজে থাকেন যাতে সহজে পেমেন্ট করা যায়। আর ইতোমধ্যেই দেশে অনেক হোস্টিং কোম্পানি তৈরি হয়েছে যাদের মধ্যে অনেক কোম্পানি আছে যারা কাস্টমারদেরকে কাঙ্খিত সেবা দেনা। সেক্ষেত্রে কাস্টমারার সাধারণত প্রতারিত হয়ে থাকে।

যারা ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তারা সাধারণত- বাংলাদেশের সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি, বাংলাদেশের ৫টি ওয়েব হোস্টিং কোম্পানির নাম, বাংলাদেশি ওয়েব হোস্টিং, কোন হোস্টিং ভালো, হোস্টিং এর দাম, বাংলাদেশে কোন ওয়েব হোস্টিং বেশি জনপ্রিয়, কোন হোস্টিং বিশ্বস্ত, কোথা থেকে হোস্টিং কিনবো ইত্যাদি প্রশ্ন করেন থাকেন। তাদের জন্যই আজকের এই আয়োজন।

এরআগে আমরা জেনে নেই হোস্টিং আসলে কি : হোস্টিং (Hosting) হচ্ছে ভার্চুয়াল স্পেস, যেখানে ওয়েবসাইট এবং ওয়েবসাইটের যাবতীয় তথ্য সংরক্ষণ করা হয়। কোন ওয়েবসাইট বানানোর জন্য এটি অন্যতম প্রধান পুর্বশর্ত। হোস্টিং ছাড়া কোন সচল ওয়েবসাইট কল্পনাই করা যায় না। আপনার হাতের মোবাইল ফোন কিংবা কম্পিউটারের যেমন একটি মেমোরি কার্ড বা হার্ডডিস্ক থাকে, যেখানে আপনার মোবাইলের সমস্ত ফাইল (যেমন: ছবি, টেক্সট, ভিডিও ইত্যাদি) রাখা হয়। ঠিক তেমনি একই রকমভাবে আপনার ওয়েবসাইটের সকল ফাইলও কোনো না কোনো একটি ওয়েব হোস্টিং বা ওয়েব সার্ভারে রাখা হয়ে থাকে।

কয়েকটি দেশীয় বিশ্বস্ত ও ভালোমানের ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি :

১. ওয়েব হোস্টবিডি (webhostbd.com) :

webhostbd

Go WebhostBD

২. ইবিএন হোস্ট  (ebnhost.com) :

EBNHOSt 2

Go EBNHost

 

৩. এক্সনহোস্ট (exonhost.com):

Exonhost

Go Exonhost

আরো বেশ কিছু ভালো হোস্টিং প্রোভাইডার রয়েছে। আমরা পরবর্তীতে তাদেরকে তালিকায় যোগ করবো।

দেশী কিংবা বিদেশী যেকোনো হোস্টিং সার্ভিস প্রোভাইডার হোক না কেন, নিরবিচ্ছিন্ন সার্ভিস গ্রাহকদের একান্ত কাম্য। তাই সবার ই উচিত কম বাজেটের হোস্টিং সেবার চেয়ে ভালো সার্ভিসের দিকে দৃষ্টি দেওয়া উচিত।

আটিকেল চলমান ….

 

Source :  কয়েকটি ভালোমানের দেশীয় ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি

You may also like

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *